Survey: মোদীর ধারে কাছে নেই, মাত্র ৪ শতাংশ মমতাকে প্রধানমন্ত্রী দেখতে চান, রাহুলের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে: Report

লোকনীতি-সেন্টার ফর দ্য স্টাডি অফ ডেভেলপিং সোসাইটিজের সঙ্গে একযোগে একটি সমীক্ষা চালিয়েছিল এনডিটিভি। আর তাতেই কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী সম্পর্কে চমকে দেওয়া তথ্য। ভারত জোড়ো যাত্রার পরে রাহুলের রেটিং যথেষ্ট বেড়েছে বলে খবর।

এবার দেখে নেওয়া যাক ঠিক কী কী বেরিয়েছে এই সমীক্ষা থেকে?

১. ১০-১৯ মের মধ্য়ে এই সার্ভে হয়েছিল। ১৯টি রাজ্যে এই সমীক্ষা হয়েছিল। তাতে দেখা যাচ্ছে বিজেপির নেতৃত্বে এনডিএর উপর প্রায় ৪৩ শতাংশ উত্তর দাতার সমর্থন রয়েছে। তারাই স্থায়ী সরকার তৈরি করতে পারবে বলে মতামত দিয়েছেন। অন্য়দিকে ৩৮ শতাংশ ব্যাপারটা মানতে চায়নি।

২. আজ যদি ভোট হয় কাকে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে বেছে নেবেন? সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ৪৩ শতাংশ মোদীর নাম বলেছেন। আর তার ঠিক নীচেই ২৭ শতাংশ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় পছন্দের মানুষ হলেন রাহুল গান্ধী।

৩. তবে কর্ণাটকে হারের পরেও মোদীর জনপ্রিয়তা কমেনি। দেখা যাচ্ছে বিজেপির ভোট শতাংশ ২০১৯ সালে ছিল ৩৭ শতাংশ। ২০২৩ সালে সেটাই হয়েছে ৩৯ শতাংশ। আর কংগ্রেসে ১৯ শতাংশ থেকে বেড়ে হয়েছে ২৯ শতাংশ।

৪. এই সমীক্ষায় প্রধানমন্ত্রী হিসাবে পছন্দের তালিকায় আরও অনেকে ছিলেন। তার মধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় আর অরবিন্দ কেজরিওয়াল পেয়েছেন মাত্র ৪ শতাংশ সমর্থন। অখিলেশ যাদব ৩ শতাংশ সমর্থন। নীতীশ কুমার ১ শতাংশ সমর্থন আর বাকি ১৮ শতাংশ অন্য় প্রার্থীকে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখতে চান।

৫. মোদী এত জনপ্রিয় কেন? ২৫ শতাংশ মোদীকে সুবক্তা হিসাবে তুলে ধরেছেন। ২০ শতাংশ তাঁর উন্নয়ন ভাবনার প্রশংসা করেছেন। ১৩ শতাংশ তাঁর কঠোর পরিশ্রমকে সম্মান জানিয়েছেন।

৬. ২৬ শতাংশ জানিয়েছেন তাঁরা রাহুল গান্ধীকে বরাবর পছন্দ করেন। আবার ১৫ শতাংশ ইঙ্গিত দিয়েছেন ভারত জোড়ো যাত্রার পরে রাহুল গান্ধীর প্রতি তাঁদের সমর্থন বেড়ে গিয়েছে।

 

Source link

Read also  Amazing Rail Facts: দেশের এই স্টেশনের দুই প্রান্ত দুই রাজ্যে! কোথায় বলুন দেখি?