Bihar: বিহারে ট্রেনের কামরা লক্ষ্য করে পাথর ছুড়ল দুষ্কৃতীরা, আহত টিটিই-সহ ১১ যাত্রী

ট্রেনের কামরা লক্ষ্য করে পাথর ছোড়ার অভিযোগ উঠল। শুক্রবার সন্ধ্যায় সমষ্টিপুর বিভাগের অন্তর্গত বিহারের মধ্যেপুরা জেলায় এই ঘটনা ঘটেছে। ট্রেনটি বুধমা স্টেশনে পৌঁছানোর পরে বেশ কয়েকজন ট্রেনের কামরা লক্ষ্য করে পাথর ছোড়ে। ঘটনায় টিকিট পরীক্ষক, রেলের কর্মী এবং যাত্রীসহ কমপক্ষে ১১ জন আহত হয়েছেন। পাশাপাশি, ট্রেনের একটি কামরা ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এই ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে রেল পুলিশ।

রেলসূত্রের খবর, ০৫২২৯ যাত্রীবাহী ট্রেনটি বিহারীগঞ্জ থেকে সহরসার দিকে যাচ্ছিল। সেই সময় ট্রেনটি বুধমা স্টেশনে থামার পরেই বেশ কিছু জনতা ইঞ্জিনের পাশের বগিতে পাথর ছুঁড়তে শুরু করে। ঘটনাক্রমে যাত্রীদের কাছ থেকে টিকিট পরীক্ষা করার জন্য টিকিট পরীক্ষক ও রেলের কর্মীদের একটি দল সেই সময় ওই কামরাতে ছিলেন। তখনই আচমকা পাথর বৃষ্টি শুরু হয়। ঘটনায় যাত্রী-সহ কামরায় থাকা সকলেই সিটের নিচে লুকিয়ে পড়েন। পাশাপাশি জানালা বন্ধ করে দেন। রেলের এক কর্মী জানান, ওই কামরায় টিকিট পরীক্ষা করার কারণেই টিকিট পরীক্ষক সহ রেলের অন্যান্য কর্মীদের লক্ষ্য করে পাথর ছোড়া হয়েছে। ওই কামরার জানালার কাঁচ ভেঙে যাওয়ায় সেটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

প্রায় ১০ মিনিটেরও বেশি সময় ধরে পাথর ছোড়ে দুষ্কৃতীরা। ট্রেনের অন্যান্য যাত্রীরা তেড়ে গেলে দুষ্কৃতীরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়। পরে ট্রেনটি মাধেপুরা স্টেশনে পৌঁছলে তদন্ত শুরু করে রেল পুলিশ।সমস্তিপুর ডিভিশনের ডিআরএম অলোক আগরওয়াল জানান, ‘যারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ এই ঘটনায় রেলওয়ে আইনের ১৫৩ এবং ১৫৪ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে বলে তিনি জানান। প্রসঙ্গত, এই রুটে অনেকেই টিকিট ছাড়া যাত্রা করছেন। ইদানীং তা বেড়ে গিয়েছে। সেই কারণেই কড়া পদক্ষেপ করছে রেল। তারপরেই এই ঘটনা ঘটল।

Source link

Read also  Pragya's controversial knife comment: 'আত্মরক্ষায় কমপক্ষে বাড়িতে ধারালো ছুরি রাখুন', হিন্দুদের বার্তা BJP-র প্রজ্ঞার