Amit Shah: ‘আইটিবিপি’র টহলদারিতে কেউ ১ ইঞ্চি জমিও দখল করার সাহস পায় না’, অমিত শাহ

নতুন বছরের প্রাক্কালে ইন্দো তিব্বতিয়ান সীমান্ত পুলিশের (আইটিবিপি) প্রশংসা করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। একই সঙ্গে সীমান্তে কর্তব্যরত এই পুলিশকে বছরে ১০০ দিনের ছুটির কথাও ঘোষণা করেছেন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আইটিবিপির উদ্দেশ্যে বলেন, ‘ইন্দো-তিব্বতিয়ান সীমান্ত পুলিশ যখন ভারত-চিন সীমান্তে টহল দেয় তখন কেউ এক ইঞ্চি জমিও দখল করতে সাহস পায় না। সেন্ট্রাল ডিটেকটিভ ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন এবং বেঙ্গালুরুর কাছে দেবনাহল্লিতে আইটিবিপি-র আবাসন কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করার পর এ কথা বলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী।

এদিন অমিত শাহ আইটিবিপির জওয়ানরা যেভাবে প্রতিকূল পরিবেশে পাহারা দিচ্ছেন তারও প্রশংসা করেছেন। তিনি বলেন, ‘কেন্দ্রীয় সশস্ত্র পুলিশ বাহিনীর মধ্যে সবথেকে প্রতিকূল পরিবেশে কাজ করতে হয় আইটিবিপিকে। তা কতটা কঠিন তা আমরা কল্পনাও করতে পারি না। সেখানে ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াস উষ্ণতায় পাহারায় অনড় থেকে তাঁরা দেশকে রক্ষা করছেন। আর এটা সম্ভব হয়েছে শুধুমাত্র তাঁদের দৃঢ় সংকল্প এবং দেশপ্রেমের কারণে।’ আইটিবিপির মনোবল বাড়িয়ে তিনি বলেন, ‘যখন তাঁরা ভারত-চিন সীমান্ত পাহারা দিচ্ছেন, তখন আমরা দেশের সুরক্ষা নিয়ে একটুও চিন্তিত নই। কারণ তাদের পাহারায় কেউ এক ইঞ্চি জমিও দখল করার সাহস করতে পারে না।’

আইটিবিপি বাহিনীকে অরুণাচল প্রদেশ, কাশ্মীর বা লাদাখে অনেকেই ‘হিমবীর’ বলে সম্বোধন করেন। অমিত শাহ মনে করেন, এই খেতাব পদ্মভূষণ বা পদ্মবিভূষণের চেয়েও অনেক মূল্যবান। এরপরেই অমিত শাহ আইটিবিপির ডিউটি ​​রোস্টারে পরিবর্তন এনে তাঁদের জন্য বছরে ১০০ দিনের ছুটি ঘোষণা করেন। তিনি জানান, ছুটির দিনে কর্মীরা হয় তাদের পরিবারের সঙ্গে থাকতে পারবে বা সদর দফতরে থাকতে পারে। আগামী লোকসভা নির্বাচনের আগেই এই ছুটি কার্যকর করা হবে বলে নিশ্চিত করেছেন অমিত শাহ।

Source link

Read also  বিজেপি হল ভিডিয়ো তৈরির কোম্পানি, কেন একথা বলছেন কেজরিওয়াল?