৪ লাখের হার্লে ডেভিডসনে চড়ে যাচ্ছেন দুধ বিক্রেতা! চমকে দিলেন সকলকে: Viral Video

কোনও কাজই ছোট নয়। অধ্যাবসায় ও কাজের প্রতি ভালবাসাই কাউকে সফল করে তোলে। বিষয়টি আরও একবার প্রমাণ করলেন এক দুধ বিক্রেতা। দামি মোটরসাইকেলে চড়ে তাঁর দুধ ডেলিভারি করার একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। অনেকেই সেই ভিডিয়ো দেখে ভারি মজা পেয়েছেন। আবার অনেকে বলছেন, এর থেকে এই শিক্ষাই পাওয়া যায় যে, জীবনে কখনও আশা হারাতে নেই। কাজের প্রতি সততা আর নিজের শখ নিয়ে তাই কোনও আপস নয়।

সবার এমন প্রতিক্রিয়া যদিও অস্বাভাবিক নয়। আসলে, চিরকাল সকলে দুধ বিক্রেতাদের অন্য রূপই দেখেছেন। ভোরবেলা তাঁরা বেরিয়ে পড়েন। ভিডিয়োর ব্যক্তির মতোই তাঁদেরও দু’টি পেল্লাই দুধের ক্যান থাকে। তবে হার্লে ডেভিডসন নয়। সাধারণ ‘বাংলা’ সাইকেলে চড়েই বাড়ি বাড়ি পৌঁছে যান। বড়জোর কারও কারও কাছে পুরনো মডেলের বুলেট, রাজদুত, প্লাটিনা বা M80 জাতীয় টু-হুইলার থাকে। কিন্তু এমন দামি মডেলের বাইক নিয়ে দুধ ডেলিভারির কথা কল্পনাও করা যায় না। আরও পড়ুন: বিশ্বজুড়ে সেরা পুলিশ মোটরসাইকেলের তালিকা, রইল আমাদের কলকাতাও

ভিডিয়োর ব্যক্তিকে একটি কালো চকচকে হার্লে ডেভিডসন মোটরসাইকেলে চড়ে যেতে দেখা যাচ্ছে। গ্রে রঙের হুডিতে তাঁকে মানিয়েছেও বেশ। হার্লে ডেভিডসনের এই মডেলটির নাম স্ট্রিট ৫০০/৭৫০ । এর এক্স-শোরুম দামই শুরু হচ্ছে প্রায় ৪ লক্ষ টাকার আশেপাশে। অবশ্য এটি সেকেন্ড হ্যান্ডও হতে পারে। সেক্ষেত্রেও ২ থেকে আড়াই লক্ষ টাকা দাম হবে।

ভিডিয়োটি কোথাকার তা জানা যায়নি। রেজিস্ট্রেশন প্লেটেও ‘গুজ্জার’ লেখা(যা কিনা বেআইনি)। তলায় অবশ্য ফরিদাবাদের হ্যাশট্যাগ দেওয়া হয়েছে।

তবে মধ্য, উত্তর ভারতের অনেকেই এই ভিডিয়োতে অবাক হননি। তাঁরা বলছেন, এটি খুব স্বাভাবিক একটি বিষয়। তাঁদের দেখা দুধ বিক্রেতারাও বেশ স্বচ্ছল। বড় গোয়ালের মালিকদের টাকা থাকাটাই স্বাভাবিক। সম্প্রতি এমনই এক দুধ বিক্রেতাকে চার চাকার গাড়িতে করে দুধ সাপ্লাই করতে দেখা গিয়েছিল। আরও পড়ুন: হার্লে ডেভিনসনে মেজাজে বসে ‘বিগ বি’, ছবি দেখে উছ্বসিত নাতনি নভ্যা কী বললেন?

Read also  Iran Food Poisoning: প্রতিবাদী পড়ুয়াদের খাবারে বিষক্রিয়া কি জেনে বুঝে ঘটানো হয়েছে? ইরানে নয়া জল্পনা তুঙ্গে

এর আগে এক দুধ বিক্রেতাকে একটি মডিফাই করে বানানো তিন চাকার গাড়িতেও দুধ ডেলিভারি করতে দেখা গিয়েছিল। অনেকটা যেন ফর্মুলা ওয়ান গাড়ির মতোই দেখতে। তাতে করেই কাজ সারছিলেন ওই ব্যক্তি। গাড়ি থেকে তার ভিডিয়ো তুলে পোস্ট করেছিলেন একজন। সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। মাহিন্দ্রা গোষ্ঠীর প্রধান আনন্দ মাহিন্দ্রাও ওই ব্যক্তির সৃষ্টিশীলতার প্রশংসা করেন।

ভিডিয়ো দু’টি আপনার কেমন লাগল? দুধ বিক্রেতারাও যে এতটা ‘কুল’ হতে পারেন, তা আগে কখনও ভেবেছিলেন?

Source link