দেশের ‘সবচেয়ে নিরাপদ ও গুরুত্বপূর্ণ’ ব্যাঙ্কের তালিকা দিল RBI

দেশের ‘সবেচেয়ে নিরাপদ’ ব্যাঙ্কগুলির তালিকা প্রকাশ করল ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। RBI-এর প্রকাশিত এই তালিকায় বলা হয়েছে, এই ব্যাঙ্কগুলিই ভারতের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য ও সুরক্ষিত। এই ব্যাঙ্কগুলির উপর গ্রাহক এবং ভারতীয় অর্থনীতি এতটাই বেশি নির্ভরশীল যে, এরা কোনওভাবে ব্যর্থ হলেই সারা দেশে তার প্রভাব পড়বে। RBI-এর তালিকায় ভারতের সেই গুরুত্বপূর্ণ ব্যাঙ্কগুলির উল্লেখ করা হয়েছে। এর মধ্যে ২টি বেসরকারি ব্যাঙ্ক এবং একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের উল্লেখ করা হয়েছে। এই তালিকায় আরও বেশ কিছু সুপরিচিত ব্যাঙ্কের নামও রয়েছে। গত বছরের তথ্যাদিও এই তালিকায় যোগ করা হয়েছে। আরও পড়ুন: Bank Holidays in January 2023: ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে কবে কবে ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকবে? বিভ্রান্ত না হয়ে দেখুন তালিকা

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, দেশের আর্থিক ব্যবস্থার জন্য গুরুত্বপূর্ণ দুইটি ব্যাঙ্কের মধ্যে অন্যতম হল SBI এবং ICICI ব্যাঙ্ক। এর পাশাপাশি HDFC ব্যাঙ্ককেও এই তালিকায় রাখা হয়েছে। এদেরকে D-SIB আখ্যা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক।

D-SIB মানে কী?

এর সম্পূর্ণ অর্থ হল ‘ডোমেস্টিক সিস্টেম্যাটিকালি ইমপরট্যান্ট ব্যাঙ্ক’। নাম থেকেই বোঝা যাচ্ছে, দেশের অর্থব্যবস্থার জন্য এই ব্যাঙ্কগুলি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর সেই কারণেই অন্য ব্যাঙ্কগুলির তুলনায় এদের বিষয়ে বেশি নজর রাখতে হয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ককে।

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, এই তিনটি ব্যাঙ্ক ও আরও কিছু আর্থিক প্রতিষ্ঠান গত বছরের বিশেষ তালিকায় স্থান রেয়েছে। RBI এই ব্যাঙ্কগুলির উপর আলাদা করে নজর ও সহায়তা প্রদান করে। সেগুলি যাতে নির্বিঘ্নে কার্যক্রম চালাতে পারে, সেদিকে নজর রাখা হয়। সেই সঙ্গে এই ব্যাঙ্কগুলির উপর বাড়তি নিয়মকানুনও প্রয়োগ করে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। এর মাধ্যমে ব্যাঙ্ক ব্যবস্থার সুরক্ষা আরও সুনিশ্চিত করা হয়। উদারহণস্বরূপ, এই ব্যাঙ্কগুলিকে তাদের ঝুঁকিপূর্ণ অ্যাসেটের একটি নির্দিষ্ট অংশ Tiet-1 ইক্যুইটি হিসাবে জমা রাখতে হয়। SBI তাদের সেই অ্যাসেটের ০.৬০% এই তালিকা রাখে। কিন্তু HDFC ও ICICI ব্যাঙ্কের ক্ষেত্রে ০.২০% রাখলেই চলে। আরও পড়ুন: Loans Written Off: গত ৫ বছরে ১০ লক্ষ কোটি টাকার ঋণ বাতিলের খাতায় ফেলেছে কেন্দ্র!

Read also  Cyclone Mandous: ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়, চূড়ান্ত ব্যবস্থা নিল ওই রাজ্যের সরকার

প্রতি বছর অগস্টে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক দেশের ব্যাঙ্ক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলির একটি বার্ষিক অ্যাসেসমেন্ট করে। এর মাধ্যমে ব্যাঙ্কগুলির ব্যাপ্তি এবং কাজের পন্থার পর্যালোচনা করা হয়। তার ভিত্তিতেই এই তালিকা তৈরি করে RBI। গত ২০১৫ সাল থেকে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক দেশের এই বিশেষ গুরুত্বসম্পন্ন ব্যাঙ্কগুলির তালিকা প্রকাশ করে। এই তালিকায় কোনও ব্যাঙ্ক থাকার অর্থ, একেবারে সুনিশ্চিতভাবেই বলা যেতে পারে যে এগুলির কোনওভাবে দেউলিয়া বা বড়সড় বিপদে পড়ার সম্ভাবনা একেবারেই নেই। ফলে দীর্ঘমেয়াদে সবচেয়ে ভরসাযোগ্য ব্যাঙ্কগুলি। তাছাড়া এই ব্যাঙ্কগুলির উপর ভারতের অর্থনীতির একটি বিপুল অংশ নির্ভরশীল। আর সেই কারণেই SBI, HDFC ও ICICI ব্যাঙ্কের বিষয়ে আরও একটু বাড়তি সতর্ক থাকে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া।

Source link