US girlfriend stabbed her partner: এত বড় ছেলের শেষে বিছানায় প্রস্রাব! রেগে গিয়ে প্রেমিককে ছুরি মারল প্রেমিকা

কারও ঘৃণ্য কাজকর্ম দেখে তার প্রতি তীব্র আক্রোশ হতেই পারে। তবে অপরাধ প্রবণতা থাকলে সে আক্রোশ থেকে অনেক সময় খুনে মানসিকতা জন্মায়। এবার বিছানায়প্রস্রাব করা ঠিক কত বড় অপরাধ তা নিয়ে অনেকে তর্ক জুড়ে দিতেই পারেন। তবে এমন অপরাধ করলে শাস্তি বেশ মারাত্মক হতে পারে, তা বুঝিয়ে দিলেন মার্কিন মুলুকের এক মহিলা। তার প্রেমিককে তেমন শাস্তিই পেতে হল। কী অপরাধ করেছিল প্রেমিক? সংবাদ সংস্থাকে প্রেমিকা জানায়, বিছানায় প্রস্রাব করে ফেলেছিল তার প্রেমিক। আর সে কারণেই হুঁশজ্ঞান হারিয়ে ছুরিকাঘাত! আপাতত সে প্রেমিক হাসপাতালে চিকিৎসা রত।

শনিবার একটি স্থানীয় হাসপাতাল থেকে ইস্ট ব্যাটন রুজ শেরিফ অফিসের ডেপুটিরা ছুরিকাঘাতের এই ঘটনা জানতে পারেন। সঙ্গে সঙ্গে তদন্তের জন্য ছুটে যান পুলিশ আধিকারিকরা। প্রাথমিক তদন্তের সময় প্রেমিকটি জানান, গত দেড় বছর ধরে প্রেমিকা ব্রায়ানা ল্যাকোস্ট একই বিছানায় শোন দুজনে। সে বিছানায় ঘুমের মধ্যে প্রস্রাব করে ফেলায় তার প্রেমিকা ‘অত্যন্ত ক্ষুব্ধ’ হয়। প্রস্রাব করার পরেও তার ঘুম ভাঙেনি। তবে প্রেমিকা মারতে শুরু করলে তিনি জেগে ওঠেন। জেগে ওঠার পরেই তিনি দূরে সরে যান। কিন্তু ল্যাকোস্ট রান্নাঘরের ছুরি নিয়ে তার দিকে দৌড়ে আসেন। আর শরীরের পাশের দিকে কোপ বসিয়ে দেন। শরীরের বাম পাশে ছুরির ক্ষতের ফলে ফুসফুসে একটি ছিদ্র হয়েছে। আপাতত তারই চিকিৎসা চলছে হাসপাতালে।

ফক্স নিউজের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রায়ানা এবং তাঁর প্রেমিক ওই রাতে মদ্যপান করেছিলেন। এমনকী প্রবল নেশাগ্রস্ত ছিলেন। এই ঘটনার পর প্রেমিকাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তদন্তের সময়, ব্রায়ানা স্বীকার করে নেন যে তিনি এই ঘটনায় ভীষণ বিরক্ত হয়েছিলেন। তাঁর কথায়, তাঁর প্রেমিক নিজের গায়ের উপরেই প্রস্রাব করছিল। আর সেই সঙ্গে বিছানাও ভিজিয়ে ফেলছিল। এরপরেই দুজনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। একটা সময় ঘটনা হাতাহাতি পর্যন্ত গড়ায়। প্রেমিক তাঁকে শ্বাসরোধ করে মারার চেষ্টা করে।তখন বাধ্য হয়ে আত্মরক্ষা করতে প্রেমিকের বাম হাতের নীচে ছুরি মারে সে।এই ঘটনার প্রথমে নিজেই চিকিৎসা শুরু করেছিলেন প্রেমিকা। তবে পরিস্থিতি সামলাতে না পেরে হাসপাতালে ভর্তি করান।

Read also  DNA test finds mother is also uncle: মা আসলে মা নন, তিনি আসলে মামা! শিশুর জিন পরীক্ষা করে চমকে গিয়েছেন বিজ্ঞানীরা

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

 

Source link