alcohol causes cancer: সামান্য পরিমাণ অ্যালকোহলও ডেকে আনতে পারে ক্যানসার, নয়া রিপোর্টে দাবি হু-এর

দুই পেগ বা এক পেগ, যত অল্পই হোক না কেন মদ শরীরের জন্য মোটেই ভালো নয়। খুব সামান্য পরিমাণে অ্যালকোহল খেলেও ক্ষতি হতে পারে শরীরের, এমনটাই জানাল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। গড়পড়তা সাধারণ রোগ নয়, ক্যানসারের মতো মারাত্মক রোগও ডেকে আনতে পারে সামান্য পরিমাণ অ্যালকোহল। সম্প্রতি বিখ্যাত বিজ্ঞান পত্রিকা ল্যানসেটে প্রকাশিত হয় হু-এর একটি রিপোর্ট। সেখানেই উল্লেখ করা হয় এই কথা। জাতিসংঘের স্বাস্থ্য বিষয়ক সংস্থার মতে, অ্যালকোহল ক্ষতিকর সাইকোঅ্যাক্টিভ, নির্ভরতা তৈরি করে (ডিপেন্ডেন্স প্রোডিউসিং) এমন একটি পানীয়। এর পাশাপাশি এটি একটি গ্রুপ ১ কারসিনোজেন। কারসিনোজেনের অর্থ হল যা থেকে ক্যানসার হওয়ার প্রবণতা রয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কথায়, খুব সামান্য পরিমাণ অ্যালকোহল বেশ কয়েকটি ক্যানসারের কারণ হতে পারে। এর মধ্যে একদিকে রয়েছে লিভার, এসোফেগাস ও কোলোরেক্টাল ক্যানসার, অন্যদিকে রয়েছে স্তন ক্যানসারের মতো সাতরকমের ক্যানসার।

ল্যানসেটে প্রকাশিত রিপোর্টটির কথায়, অ্যালকোহল পানের ফলে প্রতি বছর সারা বিশ্বে ৭,৪০০০ জন ক্যানসার আক্রান্ত রোগীর সন্ধান মিলছে। ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের দেশগুলিতে অনেকেই প্রতিদিন কম থেকে মাঝারি পরিমাণ অ্যালকোহল পান করা হয়। এই অ্যালকোহলের পরিমাণ বোঝাতে হু ২০ গ্রাম বিশুদ্ধ অ্যালকোহলের কথা বলে। এই পরিমাণটি আবার দেড় লিটার ওয়াইন বা সাড়ে তিন লিটার বিয়ার বা ৪৫০ মিলিলিটার স্পিরিটের সমান। এই পরিমাণ অ্যালকোহল পানের কারণে ২০১৭ সালে ২৩০০০ জন ক্যানসারে আক্রান্ত হন। এই পরিসংখ্যান সম্পূর্ণ অ্যালকোহলঘটিত ক্যানসারের ১৩.৩ শতাংশ। পাশাপাশি সারা বিশ্বের মোট ক্যানসারের আক্রান্তের ২.৩ শতাংশ।

এর পাশাপাশি হু-এর রিপোর্টে বলা হয়, বেশ কিছু সমীক্ষার মতে, নিয়মিত অল্প পরিমাণে অ্যালকোহল পান করলে হৃদরোগ ও ডায়াবিটিস থেকে কিছুটা মুক্তি পাওয়া যায়। তবে এমন দাবির সপক্ষে কোনওরকম প্রমাণ পেশ করতে পারেনি উক্ত সমীক্ষগুলি। পাশাপাশি সমীক্ষাগুলিতে ঠিক কতটা পরিমাণ অ্যালকোহল পান করলে ক্যানসার হতে পারে সে নিয়েও নির্দিষ্ট করে কিছু বলা হয়নি।

Read also  Egg Malai Curry Recipe: একঘেয়ে এগ কারি খেয়ে মুখে অরুচি? নারকেলের দুধ দিয়ে এভাবে রান্না করুন ডিম

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী, নিয়মিত অ্যালকোহল পান করার জন্য একদিকে যেমন ক্যানসার আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। তেমনই বাড়ছে মর্টালিটির হার। এর পাশাপাশি বিকলাঙ্গের সমস্যাও দিনদিন বেড়ে চলেছে।

 

 

Source link