Acidity and digestion issues: এই অভ্যাসগুলির জন্যই হজমের সমস্যা জেরবার করে দেয়, আজই থেকে বদল আনুন অভ্যাসে

অম্বলের সমস্যা নেই এমন মানুষের খুঁজে পাওয়া দায়।কিছু খেলেই টক টক ঢেকুর ওঠা বা গ্যাসের সমস্যা হয় অনেকেরই। পেট শরীরের একটি গুরত্বপূর্ণ অঙ্গ। এটি সুস্থ থাকলে তবেই স্বাস্থ্য ভাল থাকে। কিন্তু নিয়মিত পেটের সমস্যা দেখা দিতে থাকলে তা চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। রোজ রোজ পেটে ব্যথা, অ্যাসিডিটি ,বদহজম, গ্যাস বা বমিবমি ভাব দেখা দিলে তা গুরুতর সমস্যার উপসর্গ হয়ে দাঁড়ায়। অভ্যাসে সামান্য কিছু বদল আনলেই এই সমস্যার থেকে সহজ রেহাই মিলতে পারে।

  • হজমের গন্ডগোল কমাতে ফাইবারে ভরপুর খাবার নিয়ম করে রোজ খাওয়া উচিত। এতে পেটের সমস্যা কিছুদিনেই দূর হবে।
  • রাতে দেরি করে খাবার খাওয়া অনেকেরই অভ্যাস। এতে খাবার হজম হতে বেশ সময় লাগে। এর ফলে পেট খারাপের আশঙ্কা আরও বেড়ে যায়। পেট খারাপ হলে রাতে ঘুমের সমস্যা তো হবেই। তাছাড়া পরের দিনও পেটের সমস্যা ভোগাতে পারে। তাই বেশি রাতে খাবার খাওয়া একদমই ঠিক নয়। খাবার খাওয়ার পর অন্তত দুই ঘন্টা হজমের জন্য সময় দেওয়া উচিত।
  • সারাদিন সঠিক পরিমাণ জল না পান করলেও হজমের সমস্যা দেখা দেয়। শরীরে জল কমে গেলেও পেটে ব্যথা হয়। তাই হজমের সমস্যা রোজ নিয়ম করে নির্দিষ্ট পরিমাণ জল পান করুন।
  • ঘুম ঠিকমতো না হলে পেটের সমস্যা আরও বেড়ে যায়। পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম যাদের হয় না তাদেরও হজমের সমস্যা অনেকটাই বেড়ে যায়।
  • প্রোবায়োটিক সমৃদ্ধ এমন খাবার বেশি করে খান। এই ধরনের খাবার হজমের প্রক্রিয়াস্বাভাবিক ও সুস্থ রাখে। হজম ক্ষমতা ভালো রাখতেই খাবারে প্রোবায়োটিক থাকা প্রয়োজন। আপেল, কলা, রসুন, দই ও পেঁয়াজের মতো খাবার অন্ত্রকে ভালো রাখতে সাহায্য করে। তাই এ খাবারগুলি রোজ ডায়েটে রাখা জরুরি।
  • সকালে ঘুম থেকে উঠেই অনেকে খালি পেটে চা পান করেন। এতে একভাবে অ্যাসিডিটিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। যারা পেটের সমস্যায় ভোগেন, তাদের সকালে ঘুম থেকে উঠে হালকা গরম জল খাওয়া উচিত। এছাড়াও, খালি পেটে চা পান করা একেবারেই ঠিক নয়। এতে সমস্যা আরও বাড়ে।
Read also  ওয়ার্ক ফ্রম হোম: এই পাঁচটা ল্যাপটপে ৪২ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে আমাজন | Work From Home: Best Offers on Laptops up to 42% Discount in amazon

 

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

 

 

Source link