Swastika Dutta Exclusive: স্লট বদলের জেরে তোমার খোলা হাওয়া ছাড়ছেন স্বস্তিকা? আসল সত্যিটা জানালেন ‘ঝিলমিল’

বাংলার সর্বকনিষ্ঠ শাশুড়িমা হিসাবে তিন মাস আগেই শুরু হয়েছে ঝিলমিলের সফর। টিআরপি তালিকায় বেঙ্গল টপার ‘অনুরাগের ছোঁয়া’র কাছে পিছিয়ে থাকলেও স্বস্তিকা দত্তর এই ভিন্নস্বাদের সিরিয়াল শুরু থেকেই মন ছুঁয়েছে একটা শ্রেণির দর্শকদের। তবুও আচমকাই সিরিয়ালের স্লট বদলের সিদ্ধান্ত চ্যানেল কর্তৃপক্ষের। আগামি ২৭শে মার্চ থেকে ‘খোলা হাওয়া’র স্লটে অর্থাৎ রাত ৯.৩০টায় দেখা যাবে জি বাংলার নতুন মেগা ‘মুকুট’। বেশ কয়েকদিন আগেই আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেছিল চ্যানেল, সম্প্রতি জানা গিয়েছে ওইদিন থেকে দুপুর ৩টের স্লটে দেখা যাবে ‘তোমার খোলা হওয়া’।

‘তোমার খোলা হওয়া’র স্লট বদল হতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্কের ঝড়। স্বস্তিকা ভক্তরা চরম হতাশ, এমনও গুজব রটে যায় অভিনেত্রী নাকি জানিয়েছেন দুপুরের স্লটে সিরিয়াল যাওয়ায় তিনি আর এই প্রোজেক্টের অংশ থাকবেন না। সত্যিটা কী? জানতে হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা যোগাযোগ করেছিল পর্দার ঝিলমিল মানে স্বস্তিকার সঙ্গে। প্রশ্ন শুনেই অভিনেত্রী স্পষ্ট জানালেন, ‘না,না! এইরকম কিচ্ছু নয়… সত্যি কথা বলতে গেলে প্রচুর মানুষ আলোচনা করবে, সমালোচনা করবে। তবে আমি দর্শকদের অনুরোধ করব যতক্ষণ না পর্যন্ত আমি কোনওরকম বিবৃতি দিচ্ছি ততক্ষণ গুজবে কান দেবেন না’।

স্বস্তিকা জোর দিয়ে জানান, ‘তোমার খোলা হওয়ার লিড অভিনেত্রী হিসাবে আমি প্রোজেক্টের সঙ্গেই আছি। আমি শিল্পী, আমার কাজ অভিনয় করা। কোন সিরিয়াল কোন স্লটে যাবে, টিআরপি কী হবে সেইসব নিয়ে ভাবার জন্য বড়রা আছে’। সঙ্গে বললেন, ‘আমার প্রোজেক্ট দুপুর ৩টের সময় যাক বা রাত ৩টের সময় যাক কিংবা রাত ৯.৩০টার সময় যাক এইসব দেখে আমার লাভ নেই। আমি শিল্পী, আমার কাজ টিমের সঙ্গে ভালোভাবে কাজ করার, সেটা আমি করছি। সত্য়ি বলতে আমি খুব খুশি যে জি বাংলা নতুন একটা স্লট নিয়ে আসছে নতুন দুপুর, সেই স্লটের প্রথম সিরিয়াল তোমার খোলা হওয়া’।


Read also  Janhvi Kapoor Set To Make Her Big Telugu Debut Opposite Jr NTR Says Report

স্বস্তিকার সঙ্গে দীর্ঘদিনের সম্পর্ক জি বাংলার। আগে এই চ্যানেলের ‘কী করে বলব তোমায়’-এর মতো হিট মেগার নায়িকা থেকেছেন তিনি। সদ্য অনুষ্ঠিত জি বাংলা সোনার সংসার অ্যাওয়ার্ডে সেরা শাশুড়ি মা-র পুরস্কারও জিতে নিয়েছেন স্বস্তিকা। চার মাস আগে যে চ্যালেঞ্জ লুফে নিয়েছিলেন পর্দার ঝিলমিল, তা পূরণ করতে পুরোপুরি সফল তিনি, তা বলে দিচ্ছে স্বস্তিকার হাতের এই সোনালি ট্রফি। 

Source link