Vande Bharat Express: বন্দে ভারতের চালকের নামে ভুল খবর স্যোশাল মিডিয়ায়, আতঙ্কে নদিয়ার লোকো পাইলট

শুক্রবার বন্দে ভারত এক্সপ্রেস হাওড়া থেকে উদ্বোধন হওয়ার পরেই নেট মাধ্যমে একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। যেখানে নদিয়ার এক লোকোপাইলটকে বন্দে ভারতের প্রথম বাঙালি চালক হিসেবে দাবি করা হয়েছে। মুহূর্তে ভাইরাল হওয়া সেই চালকের নাম শুভেন্দু বড়াই। এখন তিনি চাকরি হারানোর আশঙ্কা করছেন। কারণ তিনি মালগাড়ির চালক, অথচ নেট মাধ্যমে তাঁকে বন্দে ভারতের প্রথম চালক হিসেবে সম্বোধন করা হয়েছে। আর তাতেই বিপদে পড়েছেন শুভেন্দু। শুধুমাত্র নেটিজেনদের ভুলের কারণে তাঁকে মাশুল দিতে হবে তীব্র আশঙ্কার মধ্যে রয়েছেন শুভেন্দু।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ ডিসেম্বর হাওড়া থেকে নিউ জলপাইগুড়ি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের উদ্বোধন হয়। সেই উদ্বোধনকে ঘিরে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি রেল কর্মীদের মধ্যেও আলাদা উৎসাহ ছিল। শুভেন্দুও সেই তালিকায় ছিলেন। তাই সেই মুহূর্তের ছবিকে তিনি ক্যামেরা বন্দি করতে হাতছাড়া করেননি। আর তারপর ক্রমেই সেই ছবি ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মাধ্যমে। সেখানে নদিয়ার বিভিন্ন পেজ এবং গ্রুপে তাঁর ছবি ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হতে থাকে। অনেকেই শুভেন্দুকে বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের প্রথম বাঙালি চালক বলেও দাবি করেন। আবার শুভেন্দু নদিয়ার বাসিন্দা হওয়ায় অনেকেই গর্ববোধ করেন। কিন্তু, নেটিজেনদের দৌলতে সেই শখ করে তোলা ছবিই এখন শুভেন্দুর কাছে শাঁখের করাত হয়ে গিয়েছে। তিনি বলেন, ‘এমন খবর ছড়ানোর আগে কেউ আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেনি। যাচাই না করে এই ধরনের খবর ছড়ানো হয়েছে সোশ্যাল মাধ্যমে।’

এর পর থেকেই তিনি এখন আতঙ্কে রয়েছেন। এমনকী অপরিচিত কোনও নম্বর থেকে ফোন ধরতে গিয়েও তিনি ভয় পাচ্ছেন। কীভাবে এই ভুল খবর ছড়িয়ে পড়ল তা কিছুতেই বুঝে উঠতে পারছেন না শুভেন্দু। তিনি বলেন, ‘আমাকে নিয়ে এভাবে যে ভুল খবর ছড়াবে তা বুঝতেই পারিনি। আমি কোনদিনই যাত্রীবাহী ট্রেন চালায়নি। আমি একজন মালবাহী ট্রেনের চালক। আমাকে হয়ত শোকজ করা হবে।’

Read also  North 24 Parganas News: ভালোবাসার মানুষের 'আবদার' মিটিয়ে চরম পরিণতি! নাবালিকার নগ্ন ছবি ভাইরাল করল 'প্রেমিক'!

Source link