Drug: বর্ষবরণের আগেই বাজেয়াপ্ত ৫ কোটির মাদক, কলকাতায় ডেলিভারির কথা ছিল

বর্ষবরণের রাত। আনন্দ উল্লাসের রাত। এরপর নতুন বছর। আনন্দে মাতবে আমজনতা। আর তার আগেই কলকাতায় এক যুবকের কাছ থেকে বাজেয়াপ্ত হল ১ কেজি ১৬ গ্রাম ওজনের মাদক বাজেয়াপ্ত হয়েছে বর্ষবরণের আগের রাতে। স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের আধিকারিকরা এই মাদক বাজেয়াপ্ত করেছে। প্রাথমিক তদন্ত এসটিএফ জেনেছে, ওই যুবক শহরে মাদক ডেলিভারি করতে এসেছিল। কিন্তু গোপন সূত্রে খবর পেয়ে তাকে আটক করা হয়। তার নাম প্রশান্ত সরকার। বয়স ২৬ বছর। বাড়ি নদিয়ার শান্তিপুরে। তার কাছ থেকে ১ কেজিরও বেশি মাদক বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

এদিকে ওই যুবকের কাছ থেকে বাজেয়াপ্ত হওয়া মাদকের দাম প্রায় পাঁচ কোটি টাকা। ওই হেরোইন কালোবাজারে প্রায় ৫ কোটি ৮ লাখ টাকা পর্যন্ত দাম উঠতে পারে। ওই যুবকের বিরুদ্ধে এনডিপিএস অ্য়াক্টে মামলা রুজু করা হয়েছে। কীভাবে ধরা পড়ল ওই যুবক?

সূত্রের খবর, শহরে মাদকের হাতবদল হতে পারে বলে এসটিএফের কাছে খবর ছিল। সেই মতো শুক্রবার বিকালে এন্টালি থানা এলাকার অন্তর্গত শিয়ালদহ স্টেশন রোড এলাকায় এসটিএফ নজরজারি করছিল। সেই সময় প্রশান্ত সরকার নামে ওই যুবককে পুলিশ আটক করে। এরপর তাকে তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ ওই নিষিদ্ধ মাদক বাজেয়াপ্ত করে।

এদিকে সে কার কাছে মাদক সরবরাহ করতে এসেছিল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মূলত মাদক পাচারের সঙ্গে আর কারা যুক্ত রয়েছে সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

তবে এবারই প্রথম নয়, এর আগেও কলকাতা থেকে মাদক পাচারের একাধিক চাঁইকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। প্রচুর মাদকও পুলিশ বাজেয়াপ্ত করেছে। পশ্চিমবঙ্গেও নানা সময় মাদক পাচারের অভিযোগে একাধিক ব্যক্তি গ্রেফতার হয়েছে।

গত মে মাসে নদিয়ায় গোয়েন্দাদের জালে ধরা পড়েছিল এক মাদক পাচারকারী। ধৃতের কাছ থেকে বাজেয়াপ্ত হয়েছিল ২ কেজি ৮৫০ গ্রাম ওজনের হেরোইন। যার বাজারমূল্য প্রায় তিন কোটি টাকা। নদিয়ার কালিগঞ্জ থানার পলাশীপাড়ার বড়নলদা থেকে মাদক পাচারের অভিযোগে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছিল সিআইডি। ধৃতের নাম জুল্লুর রহমান শেখ।

Read also  দক্ষিণবঙ্গে জমিয়ে ঠাণ্ডা চলতি সপ্তাহেই! কী জানাল হাওয়া অফিস, জেনে নিন

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই এলাকায় বেশ কয়েক দিন ধরে হেরোইনের পাচার চলছিল। সেই ঘটনার খবর পেয়ে তদন্তে নামে সিআইডি। অবশেষে পলাশীপাড়া বাস স্ট্যান্ড এলাকা থেকে বছর পঞ্চাশের ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেন গোয়েন্দারা। সিআইডির মাদক বিভাগের আধিকারিকরা পলাশীপাড়ার বড় নলদা এলাকার ওই বাসস্ট্যান্ডে হানা দিয়ে ওই ব্যক্তিকে প্রথমে আটক করে। তার হাতে একটি নাইলনের ব্যাগ ছিল। সেই ব্যাগ খুলতেই বেরিয়ে আসে প্রচুর হেরোইন। একেবার সাধারণ ব্যাগে রাখা ছিল হেরোইন।

 

Source link